1. admin@dineralo24.com : Dineralo24 : Md Hafizul Islam
  2. hmdkamal2001@gmail.com : Md Kamal Hossain : Md Kamal Hossain
  3. ahmedsiam409@gmail.com : Siam Hossain : Siam Hossain
তেলের দাম বৃদ্ধির কারণ কারণ কি? - দিনের আলো ২৪
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩৫ অপরাহ্ন

তেলের দাম বৃদ্ধির কারণ কারণ কি?

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২
  • ৩৩ বার পঠিত
তেলের দাম বৃদ্ধির কারণ
তেলের দাম বৃদ্ধির কারণ কারণ কি

জ্বালানি তেলের দাম যে পরিমাণে বাড়ানো হয়েছে, তাতে যাত্রীদের ওপর চাপ বিপুলভাবে বাড়বে বলে মনে করছেন বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রমেশ ঘোষ। তিনি বলেছেন, এর আগে এক দফায় জ্বালানি তেলের দাম এতটা বাড়ানোর নজির আছে কি না, তা মনে পড়ছে না।

জ্বালানির দাম বাড়ানোর এই হারকে অস্বাভাবিক আখ্যায়িত করেছেন শ্যামলী পরিবহনের স্বত্বাধিকারী রমেশ ঘোষ। দ্রব্যমূল্যের ওপরও এর প্রভাব পড়বে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

শুক্রবার রাতে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে সরকার। ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ৩৪ টাকা বাড়িয়ে ১১৪ টাকা, পেট্রোলের দাম ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৩০ টাকা এবং অকটেনের দাম ৪৬ টাকা বাড়িয়ে ১৩৫ টাকা করা হয়েছে। রাত ১২টার পর থেকেই নতুন এই দাম কার্যকর হয়েছে।

উন্নয়নের কথা মানুষকে মনে করিয়ে দিতে হবেঃ প্রধানমন্ত্রী

সরকার এর আগে গত নভেম্বরে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ১৫ টাকা বাড়িয়েছিল। তখন দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল লিটারপ্রতি ৮০ টাকা। ডিজেলের দাম বাড়ানোর পর বাসভাড়া বাড়ানো হয় প্রায় ২৭ শতাংশ, যা তেলের দাম বাড়ানোর হারের চেয়ে অনেক বেশি। একইভাবে তখন লঞ্চভাড়া বাড়ানো হয় ৩৫ শতাংশ।

সবমিলে বছরে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) বিক্রি করা মোট জ্বালানি তেলের ৬৫ শতাংশ ব্যবহার করে পরিবহন খাত। প্রায় ১৬ শতাংশ ব্যবহৃত হয় কৃষি খাতে। শিল্প খাতে ৭ ও বিদ্যুৎ খাতে ১০ শতাংশ তেল ব্যবহৃত হয়।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর কারণে নতুন করে বাস, লঞ্চ ও ট্রাকভাড়া বাড়বে। প্রাইভেট কারের মালিক ও মোটরসাইকেলের চালকদের খরচও বাড়বে। ব্যয় বাড়বে কৃষি খাতে, যা বাড়িয়ে দেবে পণ্যের দাম।

এদিকে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর খবর শোনার পরই আতঙ্কিত মানুষ ফিলিং স্টেশনে ছুটে গেছেন। প্রথম আলোর প্রতিবেদকেরা বিভিন্ন ফিলিং স্টেশনে রাত ১২টার আগে তেল নিতে যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখতে পেয়েছেন।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার খবরে ঢাকার পেট্রলপাম্পগুলোতে সব ধরনের যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। জ্বালানি নিতে ভিড় করা এসব গাড়ির মধ্যে মোটরসাইকেল ও প্রাইভেট কারের সংখ্যাই বেশি। এদিকে দাম বাড়ার খবর শোনার পর কোনো কোনো পেট্রলপাম্প বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার রাত ১০টার দিকে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর কথা জানানো হয়। ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ৩৪ টাকা বাড়িয়ে ১১৪ টাকা, পেট্রলের দাম ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৩০ টাকা এবং অকটেনের দাম ৪৬ টাকা বাড়িয়ে ১৩৫ টাকা করা হয়। শুক্রবার রাত ১২টার পর থেকেই নতুন এই দাম কার্যকর হয়েছে।

জ্বালানি তেলের দাম এক লাফে এতটা বাড়ানোর খবরে বহু মানুষ মোটরসাইকেল–প্রাইভেট কার নিয়ে পেট্রলপাম্পের দিকে ছুটতে থাকেন। এতে অনেক পেট্রলপাম্পের সামনে গাড়ির দীর্ঘ লাইন রাস্তার মাঝখানে চলে যায়। এতে যান চলাচল ব্যাহত হয়ে অনেক জায়গায় যানজট তৈরি হয়।

রাত ১১টার দিকে মোটরসাইকেলে করে কারওয়ান বাজার থেকে সাতরাস্তা হয়ে মহাখালী রেলগেটের উদ্দেশে রওনা দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছতে ৪৫ মিনিট সময় লেগেছে। সাধারণত শুক্রবারে এই সময়ে এ পথ যেতে ১০ মিনিটের মতো সময় লাগে। যাওয়ার পথে তিনি যতগুলো পেট্রলপাম্প খোলা দেখেছেন, সব কটিতেই যানবাহনের লম্বা সারি দেখতে পেয়েছেন। সেখানে মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কারের পাশাপাশি বাস ও ট্রাকও দেখা গেছে। এ সময় তিনি দুটি পেট্রলপাম্প বন্ধ পেয়েছেন। একটি পেট্রলপাম্পে একজন নিরাপত্তাকর্মী ছাড়া কেউ ছিলেন না। অন্যটিতে নিরাপত্তাকর্মীও পাওয়া যায়নি।

এদিকে রাত পৌনে ১২টার দিকে মহাখালীর শিকদার ফিলিং স্টেশনে গিয়ে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। সেখানকার একজন নিরাপত্তাকর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, রাত ১০টা থেকে পেট্রলপাম্পটি বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে দাম বাড়ার ঘোষণায় বন্ধ করা হয়েছে কি না, তিনি সেটা বলতে পারছেন না।

তেজগাঁওয়ের গুলশান লিংক রোডের আইডিয়াল ফিলিং স্টেশনটিও বন্ধ পাওয়া গেছে। পাম্পের প্রবেশপথ দুটিতে লোহার শিকল দিয়ে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা হয়েছে। সেখানেই কথা হয় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আকিব হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, তেলের দাম বাড়ার ঘোষণার পর মোটরসাইকেল নিয়ে দুটি পাম্পে গিয়েছেন। দুটোই বন্ধ পেয়েছেন।

যানজটে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় মো. রফিক নামের এক উবার–চালকের সঙ্গে এই প্রতিবেদকের কথা হয়। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, রাত ১১টার দিকে একজন যাত্রীকে মগবাজারে নামিয়ে দেওয়ার পর তিনি জানতে পারেন জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে সরকার। তারপর তিনি মহাখালীতে যাচ্ছেন তেল নিতে। তবে যানজটের কারণে তিনি আধা ঘণ্টায়ও মহাখালীতে পৌঁছাতে পারেননি।

প্রাইভেট কার নিয়ে তেল নিতে পরীবাগে পেট্রলপাম্পে এসেছেন শামীম চৌধুরী নামের এক রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ী। তিনি সাড়ে ৯ লিটার তেল নিয়েছেন। তিনি বলেন, গাড়িতে ভালোই তেল ছিল। কিন্তু রাতেই দাম বাড়ছে বলে লাইনে দাঁড়িয়ে তেল নিয়েছেন।

রাত ১১টার দিকে এই পেট্রলপাম্পে গিয়ে মোটরসাইকেল ও প্রাইভেট কারের দীর্ঘ সারি দেখা যায়। প্রথম আলোর বিভিন্ন জেলার প্রতিনিধিরাও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার ঘোষণার পর পেট্রলপাম্পগুলোতে যানবাহনের ব্যাপক ভিড় তৈরি হওয়ার কথা জানিয়েছেন।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে সরকার। ডিজেলের দাম লিটারে ৩৪ টাকা, অকটেনের দাম লিটারে ৪৬ টাকা আর পেট্রলের দাম লিটারে ৪৪ টাকা বাড়ানো হয়েছে।

এখন এক লিটার ডিজেল ও কেরোসিন কিনতে ১১৪ টাকা লাগবে। এক লিটার অকটেনের জন্য দিতে হবে ১৩৫ টাকা। আর প্রতি লিটার পেট্রলের দাম হবে ১৩০ টাকা।

আজ শুক্রবার বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জ্বালানি তেলের নতুন এই দর জানানো হয়েছে। বলা হয়েছে, আজ রাত ১২টার পর থেকে নতুন এই দর কার্যকর হবে।

এর আগে গত বছরের নভেম্বরে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছিল। সে সময় ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ১৫ টাকা বাড়ানো হয়। তাতে দাম হয়েছিল ৮০ টাকা লিটার। তার আগে এই দুই জ্বালানি তেলের দাম ছিল লিটারে ৬৫ টাকা।

দাম বাড়ার কারণ ব্যাখ্যায় জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ পেট্টোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) বিগত ছয় মাসে (ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত) জ্বালানি তেল বিক্রিতে ৮ হাজার ১৪ কোটি টাকার বেশি লোকসান দিয়েছে। বর্তমানে আন্তর্জাতিক তেলের বাজার পরিস্থিতির কারণে বিপিসির আমদানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে যৌক্তিক মূল্য সমন্বয় অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সে অনুযায়ী জ্বালানি তেলের মূল্য পুনর্বিবেচনা করা হবে।

MD Siam Hossain

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

About Us

Stay with us by subscribing to our website to be the first to receive all the trusted news from around the world. https://dineralo24.com/

© All rights reserved © 2019 Dineralo24
Theme Customized By Theme Park BD