1. admin@dineralo24.com : Dineralo24 : Md Hafizul Islam
  2. hmdkamal2001@gmail.com : Md Kamal Hossain : Md Kamal Hossain
  3. ahmedsiam409@gmail.com : Siam Hossain : Siam Hossain
বেয়ারস্টোর ২৫ দিন কোহলির ১৮ মাসের সমান - দিনের আলো ২৪
মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:০১ পূর্বাহ্ন

বেয়ারস্টোর ২৫ দিন কোহলির ১৮ মাসের সমান

  • আপডেট সময় : বুধবার, ৬ জুলাই, ২০২২
  • ১০৬ বার পঠিত

এজবাস্টন টেস্টের পর বিরাট কোহলিকে ট্রল করে টুইট করে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের সমর্থকগোষ্ঠী ‘বার্মি আমি’। টুইটারে অ্যাকাউন্টের নামও পাল্টে ‘জনি বেয়ারস্টো বার্মি আর্মি’ রেখেছে তারা। আর এ আইডি থেকে যে ট্রলটি তারা করেছে, সেটি কোহলির মাপের ব্যাটসম্যানের জন্য নির্মমই, ‘বেয়ারস্টোর গত ২৫ দিনের রান কোহলির গত ১৮ মাসের রানসংখ্যার চেয়ে বেশি

ইংলিশ সমর্থকেরা নির্মম হলেও ভুল কিছু বলেননি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ হওয়া টেস্ট সিরিজে গত ২ জুন লর্ডসে প্রথম টেস্ট খেলে ইংল্যান্ড। সে ম্যাচে বেয়ারস্টো ব্যাটিংয়ে তেমন কিছু করতে পারেননি। ট্রেন্ট ব্রিজে ১০ জুন শুরু হওয়া দ্বিতীয় টেস্ট থেকে ‘মাইডাস টাচ’ পেয়ে যান বেয়ারস্টো। সেদিন থেকে কাল এজবাস্টন টেস্টের শেষ দিন পর্যন্ত এই ২৫ দিনে টেস্টে ছয় ইনিংসে বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিই চারটি, আরেকটি ইনিংস অপরাজিত ৭১ রানের। এর মধ্যে টেস্টে ব্যাটিংয়ের ধাঁচও পাল্টেছেন ইংল্যান্ড তারকা। আর কোহলি তিন সংস্করণ মিলিয়ে সর্বশেষ সেঞ্চুরি পেয়েছেন ২০১৯ সালে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে। স্বাভাবিকভাবেই আইসিসির র‍্যাঙ্কিংয়ে এর প্রভাব পড়েছে।

কাল এজবাস্টনে ইংল্যান্ডের কাছে ভারতের ৭ উইকেটে হারের টেস্টেও যে কোহলির ব্যাট হাসেনি। আর তাই আজ আইসিসি প্রকাশিত টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ দশের বাইরে ছিটকে পড়েছেন ভারতীয় তারকা। ঠিক কতদিন পর কোহলি শীর্ষ দশের বাইরে ছিটকে পড়লেন তা গবেষণার বিষয়। তবে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, ২৫০৩ দিন, অর্থাৎ ছয় বছরেরও বেশি সময় পর।

সেদিন মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুজনের মৃত্যুও হয়

এজবাস্টনে ভারতের দুই ইনিংসে ১১ ও ২০ রান করা কোহলির অবনমন ঘটেছে তিন ধাপ। নেমে গেছেন ১৩তম স্থানে। টেস্টে সর্বশেষ ছয় ইনিংসে দুটি সেঞ্চুরি ও তিনটি ফিফটি তুলে নেওয়া ভারতের উইকেটকিপার ঋষভ পন্ত তাঁর ক্যারিয়ার–সেরা র‍্যাঙ্কিংয়ের দেখা পেয়েছেন। ছয় ধাপ উন্নতি করে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছেন পন্ত। আর বেয়ারস্টো ও জো রুট?

স্বপ্নের মতো সময় কাটাচ্ছেন এ দুই ইংলিশ তারকা। এজবাস্টনে অপরাজিত ১৪২ রানের ইনিংস খেলা রুট ৯২৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন। আর ১১ ধাপ লাফ দিয়ে কোহলির আগের জায়গাটা নিয়েছেন বেয়ারস্টো—উঠে এসেছেন দশম স্থানে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে ৪৭তম স্থানে ছিলেন বেয়ারস্টো। চার টেস্ট পর তিনি এখন দশম স্থানে—২০১৮ সালের পর এই প্রথম দশম স্থানে উঠে এলেন বেয়ারস্টো।

ইংল্যান্ড দলে ফেরার পর তিন টেস্টে ১৭ উইকেট নেওয়া পেসার জেমস অ্যান্ডারসন বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে ছয়ে উঠে এসেছেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ৯ উইকেট নেওয়া অস্ট্রেলিয়ান স্পিনার নাথান লায়ন পাঁচ ধাপ লাফ দিয়ে উঠে এসেছেন ১৩ নম্বরে। টেস্ট অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ দশে কোনো পরিবর্তন নেই।

এজবাস্টন টেস্টে ইংল্যান্ডের শুরুটা ছিল স্বপ্নের মতো। ভারতের ওপরের সারির ৫ ব্যাটসম্যানকে ৯৮ রানে আউট করার পর ম্যাচটায় ইংল্যান্ডের অবস্থানই দাপুটে মনে হচ্ছিল। কিন্তু ঋষভ পন্ত ও রবীন্দ্র জাদেজার জুটির পর প্রথম দিন বিকাল থেকেই ম্যাচটা ভারতের। তখন থেকেই ইংল্যান্ডকে ছুটতে হচ্ছে ভারতের পেছনে।

তৃতীয় দিনের খেলা শেষেও গল্পটা এমনই। ভারত তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৪৫ ওভারে ৩ উইকেটে ১২৫ রান করেছে, এগিয়ে গেছে ২৫৭ রানে। চেতেশ্বর পূজারা ১৩৯ বলে ৫০ রান করে অপরাজিত আছেন। তাঁকে সঙ্গ দিচ্ছেন ৪৬ বল খেলে ৩০ রান করা পন্ত।

স্কোরবোর্ডে ৫ উইকেটে ৮৫ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করেছিল ইংল্যান্ড। এরপরের গল্পে নায়ক শুধু জনি বেয়ারস্টো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ট্রেন্ট ব্রিজ ও হেডিংলির পর ভারতের বিপক্ষে এজবাস্টনেও সেঞ্চুরি করলেন এই ডানহাতি। টানা তিন ম্যাচে তাঁড় তিন শতকের সবকটিই এসেছে আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে। এটি বেয়ারস্টোর ক্যারিয়ারের ১১তম টেস্ট সেঞ্চুরি।

আজ দিনের শুরু থেকেই অধিনায়ক বেন স্টোকসকে নিয়ে প্রতি-আক্রমণের পথ বেছে নেন বেয়ারস্টো। প্রতিপক্ষ দলের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি বেয়ারস্টোর সঙ্গে কথার যুদ্ধ জড়াতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটি কাজে দেয়নি। বল পুরোনো হওয়ার পর ভারতীয় বোলারদের ফুল ও শর্ট লেংথের বলগুলোকে মাঠের চারপাশে পাঠিয়েছেন স্বাচ্ছন্দ্যে।

তবে সঙ্গীর অভাব ভুগিয়েছে বেয়ারস্টোকে। শার্দুল ঠাকুরের পর যশপ্রীত বুমরার হাতে দুইবার জীবন পেলেও বেন স্টোকস সেটিকে কাজে লাগাতে পারেননি। শার্দুলের বলে বুমরার অবিশ্বাস্য ক্যাচেই থামে স্টোকসের ইনিংস। ৩৬ বল খেলে ২৫ রান করেন তিনি। স্টোকসের বিদায়ে বেয়ারস্টোর সঙ্গে ৬৬ রানের জুটির সমাপ্তি ঘটে।

এরপর উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান স্যাম বিলিংসকে নিয়ে আরও ৯২ রান যোগ করেন বেয়ারস্টো। মোহাম্মদ শামির বলে কোহলির হাতে ক্যাচ তুলে আউট হওয়ার আগে বেয়ারস্টোর ব্যাট থেকে আসে ১৪০ বলে ১০৬ রানের ইনিংস। ১৪টি চার ও ২টি ছক্কা ছিল বেয়ারস্টোর ইনিংসে।

ইংল্যান্ডের ইনিংস এরপর দীর্ঘ হয়নি। মোহাম্মদ সিরাজের সামনে দাঁড়াতে পারেনি ইংল্যান্ডের লেজের সারির ব্যাটসম্যানরা। স্টুয়ার্ট ব্রড ১ রান করে আউট হন। ৫৭ বলে ৩৬ রান আসে বিলিংসের ব্যাট থেকে। অ্যান্ডারসন (৬) ও ম্যাথু পটস (১৯) ১৭ রানের জুটি গড়লে ইংল্যান্ড যায় ২৮৪ রান পর্যন্ত। ৪ উইকেট নেওয়া সিরাজ ছিলেন ভারতের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি বোলার। বুমরা ৩টি ও শামি ২টি করে উইকেট নিয়েছেন।

MD Siam Hossain

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

About Us

Stay with us by subscribing to our website to be the first to receive all the trusted news from around the world. https://dineralo24.com/

© All rights reserved © 2019 Dineralo24
Theme Customized By Theme Park BD